সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৬ জুলাই ২০২১

প্রতিবন্ধী শিশুদের বিশেষ বিদ্যালয়

সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রণাধীন সমাজসেবা অধিদফরের মাধ্যমে প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য সরকারিভাবে বিদ্যালয় পরিচালিত হচ্ছে। এ সকল বিদ্যালয়গুলো হচ্ছে বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়। ৫টি পিএইচটি সেন্টার নামে পরিচিত কেন্দ্রে বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের পাশাপাশি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ও আছে। এছাড়াও ২টি পৃথক বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় রয়েছে। মানসিক শিশুদের প্রতিষ্ঠানটি চট্টগ্রামের রৌফাবাদে অবস্থিত। নিম্নে সরকারিভাবে পরিচালিত প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়সমূহের বিবরণী দেয়া হলো:-

 

বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়

 

শ্রবণ প্রতিবন্ধী শিক্ষা, প্রশিক্ষণ এবং কর্মসংস্থানের জন্য সমাজকল্যাণ মন্ত্রণাল সমাজসেবা অধিদফতর ৭টি শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় পরিচালনা করছে। এ সকল বিদ্যালয়ে ছাত্রদের ইশারা ভাষা শিক্ষা প্রদানের পাশাপাশি সাধারণ শিক্ষা প্রদান করা হয়।

 

সেবাদান কেন্দ্র

ক্রম

প্রতিষ্ঠানের নাম ও ঠিকানা

নিবাসীর ধরন

অনুমোদিত আসন সংখ্যা

ফোন নম্বর

বাক-শ্রবণ প্রতবন্ধী বিদ্যালয়, পিএইচটি সেন্টার, সেকশন-১৪, মিরপুর, ঢাকা

বালক

৮০

৯০০৩৫৪০

বাক-শ্রবণ প্রতবন্ধী বিদ্যালয়, পিএইচটি সেন্টার, গোয়ালখালী, খুলনা

মিশ্র

৮০

০৪১- ৭৬২৯৯৭

বাক-শ্রবণ প্রতবন্ধী বিদ্যালয়, পিএইচটি সেন্টার, মুরাদপুর, চট্টগ্রাম

মিশ্র

৮০

০৩১-৬৫৫৭২৯

৪.

বাক-শ্রবণ প্রতবন্ধী বিদ্যালয়, পিএইচটি সেন্টার, ষষ্ঠীতলা, রাজশাহী

মিশ্র

৮০

০৭২১-৭৭২৭৫৮

৫.

সরকারি বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, ফরিদপুর

মিশ্র

১০০

০৬৩১-৬৪০০৮

৬.

সরকারি বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, বাবুরহাট, চাঁদপুর

মিশ্র

১০০

০৮৪১-৬৫৮২৯

৭.

সরকারি বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, শেখঘাট, সিলেট

মিশ্র

১০০

২৮৩৩৮৮০

 

 

সর্বমোট

৬২০

 

 

 

সেবা গ্রহীতা

  • শ্রবণ প্রতিবন্ধী শিশু যাদের বয়স ৬ থেকে ১৬ বছর।

 

সেবা

  • বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের সাইন ল্যাংগুয়েজ শিক্ষা;
  • বাক ও শ্রবণ  প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের সাধারণ শিক্ষা;
  • বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের আবাসিক/অনাবাসিক থাকার ব্যবস্থা ও ভরণ-পোষন;
  • বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ; চিকিৎসা সেবা, খেলাধুলা, চিত্তবিনোদন ব্যবস্থা করা;
  • বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের পুনর্বাসন।

 

সেবা প্রদান পদ্ধতি (সংক্ষেপে)

আগ্রহী অভিভাবকদের নির্ধারিত ফরমে বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরাবর আবেদন দাখিল করতে হয়। সংশ্লিষ্ট প্রধান শিক্ষক প্রাপ্ত আবেদনপত্রের  তালিকা প্রস্ত্তত করে ভর্তি কমিটির সভার মাধ্যমে বাক শ্রবণ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হয়। এ সকল প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ভরণ-পোষণসহ দক্ষ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিক্ষার পাশাপাশি বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় ।

 

কার্যাবলি

  • অভিভাবক কর্তৃক নির্ধারিত ফর্মে আবেদন;
  • ভর্তি কমিটি কর্তৃক আবেদন বাছাই ও চুড়ান্ত অনুমোদন;
  • ভর্তি কমিটি কর্তৃক চূড়ান্ত অনুমোদন ও বিদ্যালয়ে ভর্তি।

 

নাগরিকদের অংশগ্রহণের ক্ষেত্র

  • প্রতিবছর জানুয়ারি মাসে শিশু ভর্তির জন্য নির্ধারিত ফরমে অভিবাবক কর্তৃক শিক্ষার্থী ভর্তির আবেদন;
  • কার্যক্রম পরিচালনায় কোন ব্যত্যয় পরিলক্ষিত হলে কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের সহায়তা করা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়নে যে কোন সহযোগিতা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের পুনর্বাসনে আর্থিক ভাবে, চাকুরী প্রদান মাধ্যমে বা তথ্য সরবরাহের মাধ্যমে সহযোগিতা করা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের প্রতি সহমর্মি আচরণ করা।

 

সেবা প্রদানের সময়সীমা

  • শিশু ভর্তি- আসন শূণ্য সাপেক্ষে আবেদন প্রাপ্তির পর সর্বোচ্চ ১ মাস
  • আবাসন ও ভরনপোষন-ভর্তির পর এস এস সি পরীক্ষা পর্যন্ত

 

যার সাথে যোগাযোগ করতে হবে

প্রধান শিক্ষক, বাক-শ্রবণ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়

 

 

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়

 

ভূমিকা

সমাজসেবা অধিদফতর দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের (অন্ধ বিদ্যালয়) জন্য ৫টি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় পরিচালনা করছে। বিদ্যালয়সমূহ ঢাকা, চট্রগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী ও বরিশালে অবস্থিত। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাত্রদের পড়াশুনার সুযোগদানের জন্য এসকল বিদ্যালয়ে ব্রেইল পদ্ধতিতে শিক্ষাদান করা হয়। এ সকল বিদ্যালয়ে হোস্টেল সুবিধা রয়েছে।

 

সেবাদান কেন্দ্র

ক্রম

প্রতিষ্ঠানের নাম ও ঠিকানা

নিবাসীর ধরন

অনুমোদিত আসন

ফোন নম্বর

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, পিএইচটি সেন্টার, সেকশন-১৪, মিরপুর, ঢাকা

মিশ্র

৩০

০২-৯০০৩৫৪০

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, পিএইচটি সেন্টার, গোয়ালখালী, খুলনা

মিশ্র

৫০

০৪১-৭৬২৯৯৭

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, পিএইচটি সেন্টার, মুরাদপুর, চট্টগ্রাম

মিশ্র

৫০

০৩১-৬৫৫৭২৯

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, পিএইচটি সেন্টার, ষষ্ঠীতলা, রাজশাহী

মিশ্র

১০০

০৭২১-৭৭২৭৫৮

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, সরকারি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, সাগরদী, বরিশাল

মিশ্র

১১০

০৪৩১-৬৩৩৯০

 

 

সর্বমোট

৩৪০

 

 

 

সেবা গ্রহীতা

  • দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিশু যাদের বয়স ৬ থেকে ১৬ বছর।

সেবা

  • দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের সাইন ল্যাংগুয়েজ শিক্ষা;
  • দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের সাধারণ শিক্ষা;
  • দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের আবাসিক/অনাবাসিক থাকার ব্যবস্থা ও ভরণ-পোষন;
  • বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ; চিকিৎসা সেবা, খেলাধুলা, চিত্তবিনোদন ব্যবস্থা করা;
  • দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের পুনর্বাসন।

 

সেবা প্রদান পদ্ধতি (সংক্ষেপে)

আগ্রহী অভিভাবকদের নির্ধারিত ফরমে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের  প্রধান শিক্ষক বরাবর আবেদন দাখিল করতে হয়। সংশ্লিষ্ট প্রধান শিক্ষক প্রাপ্ত আবেদনপত্রের  তালিকা প্রস্ত্তত করে ভর্তি কমিটির সভার মাধ্যমে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হয়। এ সকল প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ভরণ-পোষণসহ দক্ষ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিক্ষার পাশাপাশি বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় ।

 

কার্যাবলি

  • অভিভাবক কর্তৃক নির্ধারিত ফর্মে আবেদন;
  • ভর্তি কমিটি কর্তৃক আবেদন বাছাই ও চুড়ান্ত অনুমোদন;
  • ভর্তি কমিটি কর্তৃক চূড়ান্ত অনুমোদন ও বিদ্যালয়ে ভর্তি।

 

নাগরিকদের অংশগ্রহণের ক্ষেত্র

  • প্রতিবছর জানুয়ারি মাসে শিশু ভর্তির জন্য নির্ধারিত ফরমে অভিবাবক কর্তৃক শিক্ষার্থী ভর্তির আবেদন;
  • কার্যক্রম পরিচালনায় কোন ব্যত্যয় পরিলক্ষিত হলে কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের সহায়তা করা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়নে যে কোন সহযোগিতা;
  • প্রতিবন্ধী  শিক্ষার্থীদের পুনর্বাসনে আর্থিক ভাবে, চাকুরী প্রদান মাধ্যমে বা তথ্য সরবরাহের মাধ্যমে সহযোগিতা করা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের প্রতি সহমর্মি আচরণ করা।

 

সেবা প্রদানের সময়সীমা

  • শিশু ভর্তি- আসন শূণ্য সাপেক্ষে আবেদন প্রাপ্তির পর সর্বোচ্চ ১ মাস
  • আবাসন ও ভরনপোষন-ভর্তির পর এস এস সি পরীক্ষা পর্যন্ত

 

যার সাথে যোগাযোগ করতে হবে

  • প্রধান শিক্ষক সংশ্লিষ্ট দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়

 

 

বুদ্ধি (মানসিক) প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়

 

যে সকল শিশু তাদের বয়সের তুলনায় মানসিক দিক দিয়ে কম বিকশিত ও সমস্যাগ্রস্ত তাদের আচার-ব্যবহার, শিক্ষা, চিকিৎসা ইত্যাদির উপর গুরুত্বব দিয়ে সমাজসেবা অধিদফতর চট্রগ্রামের রউফাবাদে মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য ১টি প্রতিষ্ঠান স্থাপন করেছে। এ প্রতিষ্ঠানে ১০০ জন মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুকে সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয়ে কারিগরী প্রশিক্ষণ প্রদানের ব্যবস্থা আছে।

সেবা প্রদানকারী অফিসের নাম

মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুদের প্রতিষ্ঠান, রৌফাবাদ, চট্টগ্রাম।

 

সেবা প্রদান পদ্ধতি (সংক্ষেপে)

আগ্রহী অভিভাবকদের নির্ধারিত ফরমে মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুদের প্রতিষ্ঠানের  অধ্যক্ষ বরাবর আবেদন দাখিল করতে হয়। সংশ্লিষ্ট অধ্যক্ষ প্রাপ্ত আবেদনপত্রের  তালিকা প্রস্ত্তত করে ভর্তি কমিটির সভার মাধ্যমে মানসিক প্রতিবন্ধী শিশু নির্বাচন করা হয়। এ সকল প্রতিবন্ধী শিশুদের ভরণ-পোষণসহ সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিক্ষার পাশাপাশি ফিজিওথেরাপি, স্পিচথেরাপি ও সাইকো থেরাপি প্রদান করা হয় ।

 

সেবা গ্রহীতা

বুদ্ধি (মানসিক) প্রতিবন্ধী শিশু যাদের বয়স ৬ থেকে ১৬ বছর।

 

সেবা

  • বিশেষ পদ্ধতিতে মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুদের শিক্ষা প্রদান;
  • সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন  কারিগরী প্রশিক্ষণ প্রদান;
  • ফিজিওথেরাপি,সাইকোথেরাপি ও স্পিচথেরাপি প্রদান;
  • শিশুদের আবাসন,ভরণ-পোষন ও চিকিৎসা সেবা;
  • খেলাধুলা, চিত্তবিনোদন ও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা।

 

কার্যাবলি

  • অভিভাবক কর্তৃক নির্ধারিত ফর্মে আবেদন;
  • ভর্তি কমিটি কর্তৃক আবেদন বাছাই ও চুড়ান্ত অনুমোদন;
  • ভর্তি কমিটি কর্তৃক চূড়ান্ত অনুমোদন ও বিদ্যালয়ে ভর্তি;

 

নাগরিকদের অংশগ্রহণের ক্ষেত্র

  • প্রতিবছর জানুয়ারি মাসে শিশু ভর্তির জন্য নির্ধারিত ফরমে অভিবাবক কর্তৃক শিক্ষার্থী ভর্তির আবেদন;
  •  কার্যক্রম পরিচালনায় কোন ব্যত্যয় পরিলক্ষিত হলে কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের সহায়তা করা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়নে যে কোন সহযোগিতা;
  • প্রিতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের পুনর্বাসনে আর্থিক ভাবে, চাকুরী প্রদান মাধ্যমে বা তথ্য সরবরাহের মাধ্যমে সহযোগিতা করা;
  • প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের প্রতি সহমর্মি আচরণ করা;

 

সেবা প্রদানের সময়সীমা

  • শিশু ভর্তি- আসন শূণ্য সাপেক্ষে আবেদন প্রাপ্তির পর সর্বোচ্চ ১ মাস
  • আবাসন ও ভরনপোষন-ভর্তির পর এস এস সি পরীক্ষা পর্যন্ত

 

যার সাথে যোগাযোগ করতে হবে

অধ্যক্ষ, মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুদের প্রতিষ্ঠান, রৌফাবাদ, চট্টগ্রাম।

বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় এর কার্যক্রম পরিচালনা

 সরকারি উদ্যোগের পাশপাশি দেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রতিবন্ধী শিশুদের শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বেসরকারিভাবে বিভিন্ন এনজিও বা প্রতিষ্ঠানের উদ্যেগে প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য বিশেষায়িত বিদ্যালয় পরিচালিত হচ্ছে। এ সকল বেসরকারি উদ্যোগকে সরকরিভাবে পৃষ্ঠপোষকতা ও সহায়তা করার লক্ষ্যে সরকার ‘প্রতিবন্ধিতা সম্পর্কিত সমন্বিত বিশেষ শিক্ষা নীতিমালা-২০০৯’ প্রণয়ন করেছে। বর্তমানে এ নীতিমালায় সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় আওতায় সারা দেশে ৭৪টি বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের শতভাগ বেতন সহায়তা প্রদান করছে। এ কার্যক্রমটি  সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রণাধীন জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন বাস্তবায়ন করে থাকে।

 এ সকল বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন ভাতা প্রদানের মাধ্যমে প্রায় ৭২২৮ জন প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী  শিক্ষার সুবিধা পাচ্ছে। সরকার এ খাতে ২০২১-২০২২ অর্থ বছরে বাজেট এ  ৩৪.৮২ কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে।

 

স্পেশাল স্কুল ফর চিলড্রেন উইথ অটিজম কার্যক্রম পরিচালনা

জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের তত্ত্বাবধানে অক্টোবর, ২০১১ সনে ফাউন্ডেশন ক্যাম্পাসে একটি সম্পূর্ণ অবৈতনিক স্পেশাল স্কুল ফর চিলড্রেন উইথ অটিজম চালু করা হয়। পরবর্তীতে ঢাকা শহরে মিরপুর, লালবাগ, উত্তরা ও যাত্রাবাড়ী, ৬টি বিভাগীয় শহরে ৬টি (রাজশাহী, খুলনা, চট্টগ্রাম, বরিশাল, রংপুর ও সিলেট) এবং গাইবান্ধা জেলায় ১টি সহ মোট ১১টি অটিজম স্পেশাল স্কুল চালু করা হয়েছে। উক্ত স্কুলগুলোতে অটিজম ও এনডিডি সমস্যাগ্রস্থ শিশুদের অক্ষর জ্ঞান, সংখ্যা, কালার, ম্যাচিং, এডিএল, মিউজিক, খেলা-ধূলা, সাধারণ জ্ঞান, যোগাযোগ, সামাজিকতা, আচরণ পরিবর্তন এবং পুনর্বাসন ইত্যাদি বিষয়ে শিক্ষা প্রদান করা হয়। এসব স্কুলে চলতি শিক্ষাবর্ষে মোট ১৪৪ জন অটিজম সমস্যাগ্রস্থ শিশু ছাত্র-ছাত্রী বিনামূল্যে লেখাপড়া করার সুযোগ পাচ্ছে।

 

 


Share with :

Facebook Facebook